সাংবাদিক কবি ও লেখক এম, আহমদ আলী সাহিত্যরত্ন। জন্ম ১৯০৯ ইংরেজী। মৃত্যু ১৯৯১ ইংরেজী। জন্ম স্থান জেলার চৌগাছা উপজেলার কয়ার পাড়া গ্রামে। গ্রামের মক্তবের পাঠ শেষে ১৯২১ সালে তিনি যশোর জেলা স্কূল থেকে জি, টি পাশ করে শিক্ষ পেশায় আত্ম নিয়োগ করেন। এ সময় তিনি দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ২০ টির অধিক প্রাথমিক বিদ্যালয় ও মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠা করেন। ১৯৫৭ সাল পর্যন্ত তিনি শিক্ষকতা করেন। ।

এ সময় যশোর অঞ্চলে তিনি "ওস্তাদজী" হিসেবে সমধিক পরিচিতি লাভ করেন। পরবর্তীতে যশোর শহরে চলে আসেন এবং তৎকালীন সময়ের মরহুম ওয়াহেদ আলী আনসারী কর্তৃক প্রকাশিত ""যশোর গেজেট" পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন । এর কিছু দিন পর তিনি "মাসিক নকীব" প্রকাশ করেন। ষাটের দশকে আয়ুব খানের মার্শাল " ল জারি হলে "নকীব" প্রকাশনা বন্ধ হয়ে যায়। এ সময়ে তিনি মাওলানা আকরাম খাঁ সম্পাদিত "দৈনিক আজাদ" - এর যশোর প্রতিনিধি হিসেবে সাংবাদিকতায় আত্ম নিয়োগ করেন। ১৯৬৮ সালে খুলনা থেকে প্রকাশিত "দৈনিক জনবার্তা" পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক হিসেবে যোগ দেন।১৯৭২ সাল পর্যন্ত এ পদে তিনি নিয়োজিত থেকে অবসর গ্রহণ করেন । বিশিষ্ট এ শিক্ষাবিদ ও কবি চৌগাছা উপজেলা পরিষদ কর্তৃক স্বীকৃ্ত সাংবাদিক হিসেবে ২০০৬ সালে মরণোত্তর স্বর্ণপদক লাভ করেন।

তাঁর প্রকাশিত ও সম্পাদিত গ্রন্থের সঙ্খ্যা ১৫ টির ও বেশী। এর মধ্যে উল্লেখ যোগ্য - "পাক যশোরের কাব্যে ভুগোল", "কাব্যে কোরান(আমপারা)", "রচনা সঞ্চায়ন" (১৯৬২) , “জ্ঞাণ সঞ্চায়ন”,(১৯৬০), "ছোটদের বিজ্ঞান"(১৯৬৫), "ফাগুন এসেছে ফিরে" প্রভৃতি।

১৯৮১ থেকে ১৯৯১ অবধি বাংলা একাডেমী স্বীকৃ্ত কবি ও সাংবাদিক হিসেবে কল্যাণ ভাতা ভোগ করেন। মরহুমের ছয় সন্তানের মধ্যে দুই পুত্র ও তিন কণ্যা এখন মার্কিন যুক্ত্রাষ্ট্রের অধিবাসী। তাঁর দ্বিতীয় পুত্র বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ডঃ শওকত আলী যুক্তরাষ্ট্রের লং আইল্যান্ড ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক।

 

This free website was made using Yola.

No HTML skills required. Build your website in minutes.

Go to www.yola.com and sign up today!

Make a free website with Yola